বল হাতে নববর্ষটা স্মরণীয় করে রাখলেন সাকিব

Share with social media...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

৪ ওভারে ২১ রানে ২ উইকেট, মাত্র একটি বাউন্ডারি, ২৪ বলের মধ্যে ডট ১১টি ; এভাবেই বল হাতে নববর্ষটা স্মরণীয় করে রাখলেন সাকিব আল হাসান। হায়দারাবাদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে কলকাতা ৮ উইকেটে রান করে মাত্র ১৩৮। আর হায়দারবাদ ৫ ইউকেট হাতে রেখেই ১৩৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। পহেলা বৈশাখের দিনে ইডেন গার্ডেনে আইপিএলের নিজ দল সানরাইজার্স হায়দারাবাদের জয়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজস্ব সেরাটাও তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন টাইগারদের বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিব ব্যাট হাতেও ছিলেন সফল, তিনি ২১ বলে করেন ২৭ রান।

সপ্তম ওভারে প্রথম বল করতে এসে রান দিলেন মাত্র ৩। ওই ওভারের পর শুরু হলো তুমূল বৃষ্টি। বৈশাখের আনন্দটা মাঠে উদযাপন করতে এসেছিলেন উম্মে আহমেদ শিশির আর আলায়না। কিন্তু ঘণ্টাখানেক পর কোনো ওভার-কর্তন ছাড়াই আবারও শুরু হলো ম্যাচ সঙ্গে সঙ্গে বৈশাখের আনন্দটাও। ইনিংসের ৯ম ওভারে আবারও বোলিং-এ সাকিব। অনেকটা কষ্ট করেই রান সংগ্রহ করছিলো কলকাতার ব্যাটসম্যানেরা। শেষ বলে মনিশ পান্ডে সীমানার প্রান্তে ক্যাচ ধরার চেষ্টায় ব্যর্থ হলেও ছক্কাটি ঠিকই বাঁচিয়ে দিয়েছিলেন।

নিজের তৃতীয় ওভারে নারাইনকে মাঠ থেকে প্যাভিলিয়নে ফেরালেন সাকিব। ৩ ওভারে ১৮ রানে ১ উইকেট নেওয়া সাকিব আরও দুর্দান্ত ছিলেন নিজের শেষ ওভারে। ১৩তম ওভারে করা তার দ্বিতীয় বলটা পাঞ্চ করেছিলেন ক্রিস লিন। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে এক হাতে দেখার মতো এক ক্যাচ নিলেন সাকিব। ১ রানের অভাবে হাফ সেঞ্চুরি ছাড়াই মাঠ ছাড়লেন লিন। টানা সাত বছর কলকাতা নাইট রাইডার্সের পক্ষে খেলার পর এবার তাদের বিপক্ষে ইউকেট কেড়ে নিতে একেবারেই হাত কাপতে দেখা যায়নি সাকিবের।