Prepaid Energy Meter

সারাদেশে শুরু হয়েছে প্রিপেইড মিটার স্থাপনের কাজ

Share with social media...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে প্রিপেইড মিটার স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে।   বিশ্বের সকল উন্নত দেশেই প্রিপেইড মিটার সিস্টেম চালু রয়েছে। উন্নত দেশসমূহের সাথে তালে তাল মিলিয়ে চলার জন্য আমাদের বাংলাদেশে প্রিপেইড মিটারের বিকল্প নেই।  প্রিপেইড মিটারের সুবিধাগুলো হলঃ

১। প্রিপেইড মিটারিং ব্যবস্থায় গ্রাহক ব্যবহারের আগেই বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে থাকেন। যার ফলে বিদুৎ কোম্পানির মিটার রিডিং, বিল প্রণয়ন এবং আদায়ের কোন ঝামেলা থাকে না। আগের মতো অতিরিক্ত বিল আসার অভিযোগ কাউকে শুনতে হবেনা ।

২। মিটারে প্রিপেইড সিস্টেম থাকায় গ্রাহক নির্দিষ্ট সীমার উপরে বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে পারবেন না। তাই মোবাইলে কথা বলার সময় আমরা যেমন সতর্ক থাকি,তখন বিদুৎ ব্যাবহারে আমরা সেই একইরকম সতর্ক থাকব ।

৩। গ্রাহক প্রয়োজনে মোবাইল কার্ডের মত কার্ড কিনে বা দরকার পড়লে বিদুৎ স্টেশনে গিয়ে নিজেই রিচার্জ করে নিতে পারবেন । রিচার্জ অনেকটা মোবাইলে রিচার্জের মতোই হবে ।

৪। মিটারে টাকা শেষ হয়ে যাওয়ার আগেই গ্রাহককে মিটার সংক্রিয়ভাবে সংকেত দিবে, ফলে বিদ্যুৎ সঞ্চয়ে গ্রাহক আরও বেশি সচেতন হবে ।

৫। প্রিপেইড মিটারের ক্ষেত্রে বিল দেয়ার জন্য অতিরিক্ত ঝামেলা পোহাতে আর হবে না। আপনি চাইলে একসাথে অনেক টাকা রিচার্জ করে রাখতে পারেন। আপনি যদি অনেক ব্যাস্ত মানুষ হোন,তবে আপনি চাইলে এক বছরের বিলের আনুমানিক হিসেব করে একসাথে রিচার্জ করে নিতে পারেন ।

৬। যেকোন সময়ে গ্রাহক দেখতে পারবেন তার কত টাকার বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে আর কত টাকা অবশিষ্ট আছে। ফলে এখানে কোনপ্রকার লুকোচুরি নেই ।

৭। যেকোন সময়ে গ্রাহক দেখতে পারবেন তার প্রকৃত  বিদ্যুৎ খরচ কত হয়েছে এবং  প্রয়োজনে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন

৮। বিদ্যুৎ বিল বকেয়া হবে না, ফলে লাইন কাটার ভয় থাকবে না ।

৯। গ্রাহকরা তাদের বিদ্যুৎ বিলের উপর 1% ডিস্কাউন্ট পাবেন। কারন আগে বিল তৈরী,মিটার রিডিং বাবদ বিদুৎ কর্মকর্তারা অনেক সময় এবং শ্রম দিতে হতো। প্রিপেইড মিটার হলে সেই শ্রম সময় অর্থ সবই সাশ্রয় হবে।

১০। প্রিপেইড মিটার ব্যবহারে, অযথা ভোল্টেজ উঠা-নামার ফলে বাসার বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির উপর প্রভাব পড়বে না। কারন প্রিপেইড মিটার অনেক উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে।